June 12, 2024
House #1, Road #17, Rupnagar Residential Area, Mirpur, Dhaka-1216
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

‘টাইমড আউট’ নিয়ে কে কি মন্তব্য করলেন ?

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ও  শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচের ২৫ তম ওভারে বল করতে আসেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। প্রথম বলে চার খাওয়ার পরের বলে লঙ্কান ব্যাটার সাদিরা সামারাবিক্রমা ক্যাচ আউট হন। এরপর ব্যাট করতে নামেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। তবে কোনো বল খেলার আগেই টাইমড আউট হয়ে গেছেন তিনি।

 

যে হেলমেট নিয়ে খেলতে নেমেছিলেন ম্যাথিউস, সেটিতে স্বস্তি বোধ করছিলেন না তিনি। পরে নতুন আরেকটি হেলমেট নিয়ে আসা হয়। সেটিতেও খানিকটা সমস্যা ছিল। তাই আবারো হেলমেট পরিবর্তন করতে চান ম্যাথিউস। কিন্তু ততক্ষণে মিনেট তিনিকের বেশি সময় পার হয়ে যায়। টাইম আউটের আবেদন করেন সাকিব। আর তাতে নিয়ম অনুযায়ী আউট দেন আম্পায়ার। তবে সাকিবের এমন টাইমড আউট নিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

 

ম্যাথিউস আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফিরলেও কমেন্ট্রি বক্সে এখনো চলছে আলোচনা। ওয়াকার ইউনিস, রাসেল আরনল্ডরা সাকিবকে পরোক্ষভাবে সমালোচনাই করেছেন। তারা বলেছেন, ‘এ রকম অখেলোয়াড়ীসুলভ আচরণ দেখেননি কখনো।’ এ ছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় সাকিবকে নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। সামাজিক যোগযোগমাধ্যম এক্স-এ (সাবেক টুইটার) নিজের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্টে স্টেইন সাকিবের এমন আবেদনের পরোক্ষ বিরোধীতা করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘বেশ, এটি মোটেও শোভনীয় নয়।’

 

টাইমড আউট’ নিয়ে সমালোচনায় মুখর হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ওপেনার মার্ক ওয়াহ, দুই সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিস ও রমিজ রাজা। এমনকি ইনিংস শেষের বিরতিতে শ্রীলঙ্কার ব্যাটার চারিথ আসালাঙ্কা বলেন, ‘আমার মতে এটা (ম্যাথিউসের টাইমড আউট) ক্রিকেটের চেতনার জন্য ভালো নয়।

 

তবে অনেকে আবার সাকিবের বুদ্ধিমত্তার প্রশংসাও করেছেন। আইনে টাইমড আউটের বিধান রয়েছে, সাকিব সেটার প্রয়োগ করেছে। আজকের ম্যাচটি বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা উভয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যে জিতবে তারা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি খেলার দৌড়ে এগিয়ে থাকবে। সেই দৃষ্টিকোণ থেকে সাকিবের এই আবেদনকে অনেকে অত্যন্ত প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *